শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ২১ জুলাই, ২০২১, ১২:০২:৪২

স্ত্রী-সন্তান ফেলে প্রবাসী নারীর সঙ্গে পালালেন স্বামী

স্ত্রী-সন্তান ফেলে প্রবাসী নারীর সঙ্গে পালালেন স্বামী

নিউজ ডেস্ক : আমেরিকা প্রবাসী এক নারীর সঙ্গে অনলাইনে পরিচয়। এরপর প্রেম। স্ত্রী কিছু টেরই পাননি, স্বামী যে এ কাণ্ড করে বসেছেন। ক্রমশই যখন তার ওপর নিপীড়ন ও নির্যাতনের মাত্রা বাড়ছিল, তখন অবশ্য কিছুটা আঁচ করতে পারছিলেন। এরপর একদিন স্ত্রী ও তাদের দুই সন্তানকে বিপদে ফেলে প্রবাসী ওই নারীর সঙ্গে পালিয়েই গেছেন স্বামী।

সম্প্রতি বগুড়ার দুপচাচিয়া থেকে দুই সন্তানের জননী এক নারী পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংকে সহযোগিতা চেয়ে একটি বার্তা পাঠিয়েছেন। ওই বার্তায় নিজের অসহায় অবস্থার কথা বলতে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি।

অসহায় নারী পুলিশকে বলেন, আমি কিছুই টের পাইনি। আমার স্বামী আমাকে বিপদে ফেলে চলে গেছেন। দুই শিশু সন্তান ফেলে তিনি আরেকটি বিয়ে করেছেন। আমাকেও কিছু বলেননি। ঘরে কোনো টাকা-পয়সা বা সংসার চালানোর মতো আয়োজনও রেখে যাননি। দুই শিশু সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছি। বাধ্য হয়ে একপর্যায়ে দুই সন্তানসহ গ্রামের বাড়ি দুপচাচিয়ায় বাবা-মায়ের কাছে এসে আশ্রয় নিয়েছি।

বার্তায় তিনি পুলিশের কাছে সহযোগিতা চান, যেন তিনি তার স্বামীকে ফিরে পান। স্বামী সন্তান নিয়ে তিনি সুখী হতে চান। বার্তা পেয়ে মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং জানায়, পুলিশ তার পাশে বন্ধুর মতো থাকবে এবং তার সমস্যা সমাধানের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে। এরপর বার্তাটি নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম জুয়েলকে পাঠানো হয়। এবং ওই নারী ও তার সন্তানদের আইনসম্মত অধিকার নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশনা ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেওয়া হয়।

ওই নারীকে পুলিশ আশ্বাস দিয়ে বলেছে, ‘আপনার স্বামী আমেরিকা প্রবাসী কথিত সেই নারীকে ইতোমধ্যে বিয়ে না করে থাকলে তাকে আপনার ও সন্তানদের কাছে ফিরিয়ে আনতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে পুলিশ।’ বার্তাটি পেয়ে আন্তরিকতার সঙ্গে ওই নারীর পাশে দাঁড়ান নওগাঁ সদর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল।

পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, আমেরিকা প্রবাসী কথিত সেই নারীকে ইতোমধ্যেই বিয়ে করেছেন ওই ব্যক্তি। এ তথ্য জেনে ওই নারী স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করার সিদ্ধান্ত নেন।

পুলিশের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স) মো. সোহেল রানা জানিয়েছেন, ওই নারী ও তার সন্তানদের ওপর নির্যাতন ও নিপীড়নের কথা উল্লেখ ও প্রাসঙ্গিক তথ্য-প্রমাণাদি উপস্থাপন করে নওগাঁ সদর থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরইমধ্যে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

আজকের প্রশ্ন

পুরো ঢাকায় ‘অঘোষিত কারফিউ’ চলছে। সরকার জনগণকে জিম্মি করে জনগণকে বাদ দিয়ে বিদেশি অতিথিদের নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে ব্যস্ত। ফখরুলের এক মন্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?