বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১, ১২:২৯:২৮

স্বামীকে হত্যা করা রান্নাঘরে মাটিচাপা দেয় পাষণ্ড স্ত্রী

স্বামীকে হত্যা করা রান্নাঘরে মাটিচাপা দেয় পাষণ্ড স্ত্রী

ঢাকা: রান্না ঘরে মৃতদেহ মাটি চাপা দিয়ে তার উপরে বসেই প্রতিদিন উনুনে সংসারের সকল কাজকর্ম চলছিলো আকলিমা বেগমের। কিন্তু এ নির্মম ও বর্বরা আর বেশি দিন ধরে রাখতে পারলেন না তিনি। নিজের স্বামীকে হত্যা করে নিশ্চুপ বোবা মেরে থাকা আকলিমা বেগম নিজের অজান্তেই গল্পের ছলে ফাঁস করে দিয়েছেন লোমহর্ষক এ হত্যাকান্ডের ঘটনার কথা। স্বামীকে হত্যা করে নিজেই থানায় নিখোঁজের সাধারণ ডায়েরী করেছিলেন আকলিমা বেগম (৫০) নামে এক নারী। তার বাড়ি মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার রমজান বেগ এলাকায়। শুক্রবার (১৫ জুলাই) দুপুরে তাকে পুলিশ গ্রেফতার করে। পরে তার দেখানো স্থান থেকে স্বামীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আড়াই মাস আগে ২ মে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় শহর শাখা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আরাফাত মোল্লার (৫০) নিখোঁজ হন। থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন স্ত্রী আকলিমা। পরে তদন্তে আকলিমাকেই সন্দেহ করে পুলিশ। অন্যদিকে, শুক্রবার সকালের দিকে আরাফাত মোল্লার স্ত্রী আকলিমা বেগমের একটি ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সে ভিডিওতে দেখা যায় আকলিমা বেগম তার নিজ স্বামী আরাফাত মোল্লাকে যেভাবে হত্যা করেছে তার বর্ণনা করছেন। এরপর, দুপুরে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বিকালে তার দেখানো বাড়ির রান্না ঘরের মেঝে খুঁড়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মুন্সীগঞ্জ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মিনহাজ উল-ইসলাম এ বিষয়ে জানান, আরাফাত মোল্লা গত ২ মে সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে নিখোঁজ হলে তার স্ত্রী আকলিমা বেগম ১৫ মে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে আরাফাত মোল্লাকে পুলিশ খোঁজ করতে থাকে। পরবর্তীতে ৩০ মে দ্বিতীয় দফায় আকলিমা বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি আমরা বিভিন্নভাবে তদন্ত করতে থাকি। আজ আকলিমাকে গ্রেফতারের পর তার দেখানো স্থান থেকেই লাশ উত্তোলন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, মৃতদেহ মাটিচাপা দেওয়ার সময় আকলিমাকে সহযোগীতা করার অপরাধে মো:রিয়াজ (২৫) নামে আরেক যুবককে আটক করা হয়েছে। সে হত্যাকান্ডের সঙ্গে আরো কোনভাবে জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনার বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)আবু বকর সিদ্দিক জানান, স্বামীর পরকিয়ার জন্য তিনি এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে আমাদের জানান। আরাফাত মোল্লাকে খাবারের সাথে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় সকালের দিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাহ করে হত্যা করেন। এই ঘটনায় মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েদের প্রস্থতি চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আজকের প্রশ্ন

পুরো ঢাকায় ‘অঘোষিত কারফিউ’ চলছে। সরকার জনগণকে জিম্মি করে জনগণকে বাদ দিয়ে বিদেশি অতিথিদের নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে ব্যস্ত। ফখরুলের এক মন্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?