শিরোনাম :
কুমিল্লায় হিন্দু-মুসলমান সবাই ব্যথিত গির্জার সামনে ছুরিকাঘাতে আহত ব্রিটিশ এমপির মৃত্যু চিরিরবন্দরে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্নহত্যা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সার্বিয়ার সহযোগিতা চান ড. মোমেন ইউপি নির্বাচনে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ৪ সাড়ে ১১ ঘন্টা পর মোবাইল ইন্টারনেট সেবা চালু বাংলাদেশে করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৯৬ বায়তুল মোকাররমে পুলিশের সাথে মুসল্লিদের সংঘর্ষে আহত ৫ আফগানিস্তানে ফের মসজিদে বোমা হামলা : নিহত ৩২ দাম একটু বেশি তবে খাদ্য সংকট নেই : কৃষিমন্ত্রী বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ কুমিল্লার ঘটনা সরকারের পরিকল্পিত : রিজভী সীমান্ত বিরোধ নিরসনে ভুটান-চীন চুক্তি সই প্রবাসীদের ভিসার মেয়াদ বাড়াল সৌদি আরব সারাদেশে থ্রিজি-ফোরজি ইন্টারনেট সেবা বন্ধ, সচল টুজি

ফের উত্তপ্ত কাচঁপুর, পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ভাঙ্গচুর, গুলি

  • বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ঢাকা : শ্রমিকদের বিক্ষোভে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠছে নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার কাচঁপুর এলাকা। সেখানে তিন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে ওপেক্স ও সিনহা গার্মেন্টসের শ্রমিকরা।

এসময় পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের পাল্টাপাল্টি ধাওয়ায় ১০ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্প‌তিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে এ বিক্ষোভ করেন দুই গার্মেন্টসের কর্মীরা। এতে মহাসড়কে সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট।

পরে পুলিশ তাদেরকে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। এতে ১০ জন শ্রমিক আহত হয় বলে শ্রমিকরা দাবি করেন।

শ্রমিকরা জানান, গত কয়েকদিন যাবত বকেয়া বেতন দেয়ার কথা থাকলেও না দেয়ার টালবাহানা করছে মালিকপক্ষ। এছাড়া শ্রমিকদের অবসর সার্ভিসের টাকা, মাতৃত্বকালীন ছুটি, বাৎসরিক ছুটির টাকা, মৃত্যুজনিত এককালীন বীমার টাকা পরিশোধ করা হচ্ছে না। এনিয়ে মালিকপক্ষের সাথে কথা বললে ছাঁটাই করার ভয়ভীতি দেখায়। গত বুধবার শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধের দিন নির্ধারিত ছিল। কিন্তু মালিক পক্ষ শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ না করে কারখানার গেইটে নোটিশ টানিয়ে দেয়। সকাল সকাল থেকে শ্রমিকরা মালিক পক্ষের লোকজনের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলেও নোটিশের বাইরে তারা কোনো কথা বলতে রাজি হয়নি। পরে বাধ্য হয়ে শ্রমিকরা বিকেল সাড়ে চারটার দিকে মহাসড়কে নেমে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা সড়ক অবরোধ শেষে শ্রমিকরা রাত হয়ে যাওয়ায় শ্রমিকরা সড়ক থেকে অবরোধ উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়।

বৃহস্পতিবার একই দাবিতে শ্রমিকরা ঢাকা সিলেট ও ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এতে সকাল অফিসগামী লোকজন আটকা পড়ে চরম ভোগান্তিতে পড়ে। রাস্তার দুইপাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ বাধ্য হয়ে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হালকা লাঠি চার্জ করে এবং রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved